Job Preparation

বাংলা ভাষা ও ব্যাকরণ নিয়ে বিভিন্ন নিয়োগ পরীক্ষার প্রস্তুতি মূলক প্রশ্ন ও উত্তর।

১। ব্যাকরণ এর সংজ্ঞা – ভাষা ব্যবহারের জন্য সুনির্দিষ্ট কিছু নিয়ম, যা ওই ভাষাকে অশুদ্ধির সীমানায় প্রবেশ করতে দেয় না, শুদ্ধের পরিকাঠামো তৈরি করে তাকে ব্যাকরণ বলে।

বাংলা ভাষা ও ব্যাকরণ নিয়ে বিভিন্ন নিয়োগ পরীক্ষার প্রস্তুতি মূলক প্রশ্ন ও উত্তর
বাংলা ভাষা ও ব্যাকরণ নিয়ে বিভিন্ন নিয়োগ পরীক্ষার প্রস্তুতি মূলক প্রশ্ন ও উত্তর

২। ব্যাকরণ শব্দের সঠিক অর্থ কি?

উঃ বিশেষভাবে বিশ্লেষণ।

৩। ব্যাকরণ শব্দটি কি শব্দ?

উঃ ব্যাকরণ শব্দটি সংস্কৃত শব্দ।

৩। ব্যাকরণ পাঠের প্রয়োজনীয়তা কি?

উঃ ভাষার বিভিন্ন উপাদানের গঠন ও প্রকৃতি সম্পর্কে সুষ্ঠু জ্ঞান অর্জন, বলা ও লেখায় শুদ্ধভাবে ব্যবহার করার জন্য ব্যাকরণ পাঠ প্রয়োজন।

৪। ব্যাকরণের সাধারন আলোচ্য বিষয় কয়টি?

উঃ তিনটি । ধ্বনিতত্ত্ব, শব্দতত্ত্ব বা রূপতত্ত্ব, বাক্যতত্ত্ব বা পদক্রম।

৫। ধ্বনিতত্ত্বের আলোচ্য বিষয় কি?

উঃ ধনী, এর উচ্চারণ রীতি, উচ্চারণের স্থান, ধ্বনি পরিবর্তন, সন্ধি ,ণ-ত্ব ও ষ-ত্ব বিধান।

৬। রুপ তত্ত্বের আলোচ্য বিষয় কি?

উঃ শব্দ, শব্দের গঠন, বচন ,লিঙ্গ ,কারক, পুরুষ, উপসর্গ ,প্রত্যয় ,বিভক্তি ,সমাস, পদের পরিচয়, ক্রিয়া প্রকরণ ইত্যাদি।

৭। বাক্যতত্ত্বের আলোচ্য বিষয় কি?

উঃ বাক্যের সঠিক গঠন প্রণালী ,পথক্রম ,পদের স্থান, পদ পরিবর্তন ,বাগধারা ,বাক্য সংযোজন, বাক্য সংকোচন, প্রবাদ প্রবচন ,বিরাম চিহ্ন ইত্যাদি।

৮। ভাষার মূল উপকরণ কি?

উঃ ভাষার মূল উপকরণ বাক্য।

৯। ভাষার ক্ষুদ্রতম একক কি?

উঃ ভাষার ক্ষুদ্রতম একক ধ্বনি।

১০। বাংলা ভাষা ?

উঃ পরস্পরের সঙ্গে ভাব বিনিময়ের জন্য বাংলা শব্দ ব্যবহার করে আমরা যেসব অর্থপূর্ণ ধ্বনি উচ্চারণ করি সাধারণভাবে তাকেই বলি’ বাংলা ভাষা’।

১১। বাংলা ভাষার জন্ম?

উঃ ইন্দো ইউরোপীয় মূল ভাষা হতে বাংলা ভাষার জন্ম।

১২। বাংলা ভাষার উৎপত্তি কাল?

উঃ সপ্তম শতকে।

১২। বাংলা ভাষার রূপ কতটি?

উঃ দুইটি (লৈখিক ও মৌখিক)

১৩ । বাংলা লৈখিক রূপের দুটি রীতি কি কি?

উঃ সাধুরিতীয় চরিত্র রীতি।

১৩। মৌখিক বা কথ্য রীতি দুটি কি কি?

উঃ চলিত রূপ ও আঞ্চলিক রূপ।

১৪। সাধুরীতির বৈশিষ্ট্য?

উঃ এর ইতি সু নির্ধারিত ব্যাকরণের নিয়ম অনুসরণ করে চলে এবং কাঠামো সাধারণত অপরিবর্তনীয়, এর পদবিন্যাস সুনিয়ন্ত্রিত ও সুনির্দিষ্ট। এর রীতি গুরুগম্ভীর ও আভিজাত্যের অধিকারী, নাটকের সংলাপ ও বক্তৃতার অনুপযোগী। তৎসম শব্দ বহুল এবং সর্বনাম ও ক্রীড়া পদের বিশেষ রীতি মেনে চলে।

১৫। চলিত রীতির বৈশিষ্ট্য?

উঃ চলিত রীতি পরিবর্তনশীল। এটি সৃষ্ট ও ভদ্রজনের মুখের বুলি হতে কালের প্রবাহে অনেকটা পরিবর্তিত রূপ লাভ করেছে। এ রীতি কৃত্রিমতাবর্জিত। এ রীতি নাটকের সংলাপ, বক্তৃতা ,আলাপ -আলোচনার জন্য উপযোগী। এ রীতি তদ্ভব শব্দ বহুল , এর ইতি সর্বনাম ও ক্রিয়াপদ চলিত রীতিতে সংক্ষিপ্ত হয়।

১৬। সাধু ভাষা ও চলিত ভাষায় সবচেয়ে বড় পার্থক্য কোথায়?

উঃ ক্রিয়া পদে

১৭। জনসংখ্যার দিক থেকে বাংলা ভাষার অবস্থান?

উঃ অষ্টম।

১৮। অফিসিয়াল অর্থাৎ দাপ্তরিক ভাষা হিসেবে বাংলা ভাষার অবস্থান কত?

উঃ দশম।

১৯। ভাষাভাষীর সংখ্যার দিক থেকে পৃথিবীতে প্রথম কোন ভাষা?

উঃ মান্দারিন, চীন।

২০। মাতৃভাষার দিক থেকে বাংলা ভাষার অবস্থান?

উঃ চতুর্থ।

জানুনঃ বাংলা সাহিত্যের প্রাচীন যুগ বিভাগ

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button